মোংলায় বিধি নিষেধের মেয়াদ বাড়লো

নিজস্ব প্রতিবেদক: মোংলায় চলমান করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় ১৬ জুন পর্যন্ত সময়সীমা বাড়িয়ে নতুন করে অধিক কঠোরতর বিধি নিষেধ জারি করেছে জেলা প্রশাসন। আজ বুধবার দুপুরে এ নতুন বিধি নিষেধ জারি করে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, মোংলার করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বসে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, নিত্যপ্রয়োজনীয় কাঁচা, মুদি, মাছ ও মাংসের দোকানপাট আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এ সকল পণ্যের দোকানপাটগুলো সরিয়ে খোলা মাঠে নেয়ার পাশাপাশি সেখানে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া পৌর শহরের সকল দোকানপাট, হোটেলসহ জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নদী পারাপার বন্ধ থাকবে। শহরতলীর পশুর হাটগুলো বন্ধ রাখারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অধিক কঠোরতর এ বিধি নিষেধ বাস্তবায়নে মোবাইল টিম, কোস্ট গার্ড, পুলিশ, আনসার ও স্বেচ্ছাসেবকরা মাঠে থাকবে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

হঠাৎ করে মোংলায় করোনা সংক্রমণ ও শনাক্ত বাড়তে থাকায় প্রথম দফায় গত ৩০ মে থেকে ৮ দিনের কঠোর বিধি নিষেধ জারি করে স্থানীয় প্রশাসন। তাতেও পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় দ্বিতীয় দফায় আরও এক সপ্তাহের বিধি নিষেধ জারি করা হয়।

দ্বিতীয় সপ্তাহের কঠোর বিধি নিষেধ চলার মধ্যেই আজ বুধবার সংশ্লিষ্টদের সাথে বৈঠক শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে ১৬ জুন বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত আরও অধিক কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করে জেলা প্রশাসন। এসময় মোংলার ইউএনও কমলেশ মজুমদার উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে চলমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মোংলা বন্দরে পণ্য ওঠানামা, পরিবহন ও অফিসিয়াল কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। তবে বন্দরের দুই কর্মকর্তাসহ ১০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বন্দরে কর্মরত মোংলা এলাকার বাসিন্দাদের কর্মস্থলে না গিয়ে নিজ বাসায় অবস্থান করে অনলাইনের মাধ্যমে কাজ করার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।