২৯ জুলাই শুরু হচ্ছে হজযাত্রা

ডেস্ক রির্পোট : মাত্র ‘এক হাজার’ মুসল্লিকে নিয়ে সীমিত আকারে ২৯ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে চলতি বছরের হজযাত্রা। সোমবার সৌদি কর্তৃপক্ষ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। পবিত্র মক্কা শহরে সাধারণ সময়ে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ প্রতিবছর হজে অংশ নেয়। চলতি বছর মহামারীর কারণে সংখ্যা হাজারে নামানো হয়েছে।

এক হাজার মানুষের কথা বলা হলেও দেশি-বিদেশি মিলিয়ে হাজার দশেক মানুষ হজে অংশ নিতে পারেন বলে সৌদির বিভিন্ন গণমাধ্যমে ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে যারা সৌদিতে অবস্থান করছেন, তাদের সংখ্যা হিসাব করে এই ধারণা করছে দেশটির একাধিক গণমাধ্যম।

হজের সময় বিশেষ অনুমতি ছাড়া মক্কার তিনটি পবিত্র স্থানে (মিনা, মুজদালিফা এবং আরাফাত) প্রবেশ করলে বাংলাদেশি মুদ্রায় সোয়া ২ লাখ টাকার মতো জরিমানা গুনতে হবে মুসল্লিদের।

আরব নিউজ জানিয়েছে, আগামী ২৮ জিলকদ (১৮ জুলাই) থেকে জিলহজের ১২ তারিখ পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

আরাফাত ময়দান মিনা থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এই ময়দানে অবস্থিত মসজিদটির নাম মসজিদে নামিরাহ। এই মসজিদের জামাতে অংশগ্রহণকারী হাজিরা জোহরের ওয়াক্তে এক আজান ও দুই ইকামতের সঙ্গে একই সময়ে পরপর জোহর ও আসরের নামাজ আদায় করে থাকেন। পরবর্তী কাজ সূর্যাস্তের পর মুজদালিফার উদ্দেশে রওনা দেওয়া।

দ্বিতীয়বার নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে তিনটি স্থানে ঢুকে পড়লে জরিমানা দ্বিগুণ করা হবে।

হজের মৌসুমে সব দেশের নাগরিককে এই নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে।