শাহাবুদ্দিন মেডিকেল বন্ধ করে দিয়েছে র‍্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীর গুলশানের শাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সিলগালা করে পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। রবিবার রাতে বিষয়টি দেশ রূপান্তরকে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক আশিক বিল্লাহ।

তিনি বলেন, সাহাব উদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন যেসব রোগী রয়েছেন, তাদের সরানোর জন্য একদিন সময় বেধে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে রবিবার বেলা আড়াইটায় শাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা অনুমতি ছাড়াই করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করছে। এ সময় হাসপাতালের সহকারী পরিচালক আবুল হাসনাতকে আটক করেছে র‌্যাব।

ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, হাসপাতালটিকে প্রথমে করোনা পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হলেও পিসিআর ল্যাব স্থাপন না করায় গত সপ্তাহে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ওই অনুমতি স্থগিত করে। কিন্তু এরপরও হাসপাতালটি বাইরে থেকে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে প্রতিবেদন দিচ্ছে। তিনি জানান, এভাবে বাইরে থেকে নমুনা পরীক্ষা করে এনে দেওয়াও বেআইনি।

সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক মো. মনসুর আলী অনুমতি স্থগিতের বিষয়টি স্বীকার করে জানান, নিজেদের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অ্যান্টিবডি নির্ণয়ের জন্য বিদেশ থেকে শ খানেক কিট আনা হয়। কিন্তু এখনো পরীক্ষা করা হয়েছে কি না, তা তিনি জানেন না। যদি পরীক্ষা করা হতো, তাহলে তাঁর জানার কথা।

করোনার নমুনা পরীক্ষায় জালিয়াতির ঘটনায় রিজেন্ট ও জেকেজি হেলথ কেয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে চলমান আইনি ব্যবস্থার মধ্যেই আরেকটি মেডিকেল কলেজে অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব।