নাটোরে বাবার ২য় বিয়ের খবরে মেয়ের আত্মহত্যা; নিহতের মা হাসপাতালে

নাটোরের হালসায় বাবার ২য় বিয়ের খবর সইতে না পেরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন মেয়ে মুন্নি (২০)। আত্মহত্মার চেষ্ট করে অবশেষে আশংকাজনক অবস্থায় মুন্নির মা জাহেদা বেগম (৩৩) কে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে নাটোর সদর উপজেলার হালশা ইউনিয়নের মন্ডলপাড়া গ্রামে মা এবং মেয়ের এই আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনা ঘটে। নিহত মুন্নি (২০) হালসা মন্ডলপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য খোরশেদ মন্ডলের মেয়ে। আহত জাহেদা বেগম খোরশেদ আলমের ১ম স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায় সাবেক ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম গোপনে ২য় বিবাহ করে। এই খবর প্রকাশ হলে অভিমানে মা ও মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এ ব্যাপারে খোরশেদ আলমের সেল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ফোন নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুর রহমান জানান, এলাকাবাসীর তথ্যের ভিত্তিতে সদর হাসপাতালে গিয়ে জানা যায় মুন্নি বাড়িতেই গলায় ফাঁস দিয়ে মারা যায়। তার মা জাহেদা বেগম কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে বিষয়টি আসলে কী ঘটেছে।