ফিলিস্তিনিদের কল্যানে পুনরায় বিশাল অংকের অর্থায়ন চালু করছে যুক্তরাষ্ট্র

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সময় ফিলিস্তিনিদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের অনুদান বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। এবার বাইডেন প্রশাসন আবারো সেটি চালু করার ঘোষণা করেছে। আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে মার্কিন অর্থায়ন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ফিলিস্তিনি উদ্বাস্তুরা বড় অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছিল। এ অবস্থায় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিনকেন পুনরায় এই অর্থ সহায়তা চালুর কথা ঘোষণা করেন। তিনি জানান, ফিলিস্তিনিদের কল্যানে কাজ করা জাতিসংঘের সংস্থাকে ১৫০ মিলিয়ন ডলার প্রদান করবে যুক্তরাষ্ট্র। বিশাল এই অর্থ ব্যয় করা হবে ফিলিস্তিনিদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ অন্যান্য নানা সেবায়। ফিলিস্তিনের মধ্যে সক্রিয় সশস্ত্র গোষ্ঠী এবং ইসরাইলি আগ্রাসনে বিশাল একটি জনগোষ্ঠী উদ্বাস্তুতে পরিণত হয়েছে সেখানে। গাজা, পশ্চিম তীর, লেবানন ও জর্ডানে মোট ৫৭ লাখ ফিলিস্তিনি শরনার্থী হিসেবে বাস করছেন।

তাদের কল্যানেই নিয়মিত অর্থ সরবরাহ করতো যুক্তরাষ্ট্র।
ব্লিনকেন জানিয়েছেন, গাজা ও পশ্চিম তীরের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য যুক্তরাষ্ট্র আরো ৭৫ মিলিয়ন ডলারের বিশাল অর্থ প্রদান করবে। ইউএসএইডের মাধ্যমে দেয়া হবে আরো ১০ মিলিয়ন ডলার।