মিয়ানমারের দুই সামরিক কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমারের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে হত্যা করায় আরো দুই উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আর এ বিষয়ে আরো পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়।

গতকাল (সোমবার) যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিদেশি সম্পদ নিয়ন্ত্রণ বিভাগ এ কথা জানিয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এই তথ্য বলা হয়েছে। সপ্তাহান্তে দুই বিক্ষোভকারীকে গুলি করে হত্যা এবং গত ৯ ফেব্রুয়ারি মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়া এক তরুণীর পরবর্তীতে মৃত্যুর পর এই ব্যবস্থা নিল যুক্তরাষ্ট্র।

নিষেধাজ্ঞার আওতায় আসা এই দুই সামরিক কর্মকর্তা হলেন : লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোয়ে মিন্ট তুন এবং জেনারেল মং মং কিয়াউ। তারা দুজনই স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কাউন্সিলের (এসএসি) সদস্য।

নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন টুইটারে লিখেছেন, আজকের এই নিষেধাজ্ঞা সহিংসতা ছড়ানো এবং জনগণের ইচ্ছা দমনের চেষ্টা করা মিয়ানমারের সামরিক নেতাদের জবাবদিহি বাড়ানোর আরেকটি পদক্ষেপ।

গত ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচিত প্রতিনিধিদের আটক করে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। নির্বাচনকে প্রহসহ দাবি করে নতুন করে নির্বাচনেরও কথা বলেছে সেনাবাহিনী। আগামী এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে মিয়ানমারে।

বিশ্ব সম্প্রদায় মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে ক্ষমতা নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কাছে দিয়ে আটককৃতদের ছেড়ে দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন।