পার্বত্যাঞ্চলের নিরাপত্তায় সব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিনিধি, বান্দরবান: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি খুবই সুন্দর তিনটি জেলায় ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করা হচ্ছে। উন্নয়নের সঙ্গে এই অঞ্চলের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হচ্ছে। পাহাড়ের উন্নয়ন ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে সমান গুরত্ব দিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে নানামুখী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে মিয়ানমারের সঙ্গে সীমান্ত সড়ক নির্মাণের কাজও চলমান রয়েছে। সীমান্ত সড়ক বাস্তবায়িত হলে এই অঞ্চলে ডেভেলপমেন্ট ও বিনিয়োগ আরও বেড়ে যাবে। পাহাড়ের উন্নয়ন ও নিরাপত্তায় করণীয় সব ব্যবস্থায় গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বান্দরবানের দুর্গম থানচি উপজেলায় নির্মিত মডেল থানা ভবনের উদ্বোধনকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যমে এসব কথা বলেছেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, বান্দরবান জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, গণপূর্ত বিভাগ (পিডব্লিউডি) ও স্থাপত্য অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে এবং পুলিশের সার্বিক সহযোগিতায় ৯ কোটি ৪৭ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত থানচি উপজেলা চারতলাবিশিষ্ট মডেল থানা ভবনটি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উদ্বোধন করেন। এর আগে তিনি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে বান্দরবানের থানচি পৌঁছান সকালে। পরে তিনি ও অতিথিরা থানা ভবনের সামনে বৃক্ষরোপণ করেন।

এছাড়া স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অপরদিকে আজ শুক্রবার থানচির দুর্গম রেমাক্রী এলাকা পরিদর্শন করে বান্দরবান ত্যাগ করবেন তিনি।