লেবানন থেকে ফিরেছেন ৭১ বাংলাদেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ সহায়তা পাঠানো বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বিমানে দেশে ফিরলেন সেখানে আটকেপড়া ৭১ বাংলদেশি। আজ বুধবার সকালে বিমানবাহিনীর সি-১৩০ জে পরিবহন বিমানযোগে এই ৭১ বাংলাদেশি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

আজ সকাল সোয়া ৭টায় ৭১ বাংলাদেশি নিয়ে বিমানবাহিনীর বিমানটি দেশে অবতরণ করে। তবে এতে ৭৩ বাংলাদেশি ফেরার কথা ছিল। বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ নিয়ে লেবানন যায় বিমানবাহিনীর সি-১৩০ জে একটি বিমান। গত ১০ আগস্ট বিমানটি লেবাননের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করে।

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বন্দর এলাকায় গত ৪ আগস্ট ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় চার বাংলাদেশিসহ মারা গেছেন ১৭১ জন। আহতদের মধ্যে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২১ সদস্যসহ প্রায় ১০০ বাংলাদেশি রয়েছেন। বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় গত ৯ আগস্ট বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ নিয়ে লেবানন যায় বিমানবাহিনীর একটি বিমান। ত্রাণ সহায়তা শেষে ফিরতি পথে ওই বিমানযোগে দেশে ফিরেছেন লেবাননে অনেক দিন ধরে আটকেপড়া ৭১ বাংলাদেশি। প্রায় এক বছরের মতো আটকে থাকা এই বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

বিমানবাহিনীর বিমানটি ভোর ৫টায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও সেটি সকাল সোয়া ৭টায় অবতরণ করে। বিমানটিতে ৭৩ বাংলাদেশি ফেরার কথা থাকলেও ফিরেছেন ৭১ জন।

বিমানবাহিনীর ১২ সদস্যের এয়ার ক্রুর সমন্বয়ে গঠিত এই মিশনের নেতৃত্বে ছিলেন বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর গ্রুপ ক্যাপ্টেন শান্তনু চৌধুরী। এই মিশনের ফলে লেবাননের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সুসর্ম্পক আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন শান্তনু চৌধুরী।