বিশ্বের পঞ্চম শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের থাবায় বিশ্ব যখন অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়েছে, তখন যেন ভাগ্যলক্ষ্মী ভর করেছে ভারতীয় ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির ওপর। ক্রমশ বাড়ছে তাঁর সম্পদ। ক্রমেই বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় তরতর করে ওপরে উঠছে আম্বানির নাম।

সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, গত ১০ জুলাই বিশ্বের সপ্তম ধনী ব্যক্তি হয়ে ওঠেন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার মুকেশ আম্বানি। বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়ারেন বাফেটকে পেছনে ফেলে এ স্থান দখল করেন আম্বানি। সেসময় তাঁর মোট সম্পদের মূল্য ধরা হয় ৭০ দশমিক ১ বিলিয়ন (সাত হাজার ১০ কোটি) মার্কিন ডলার। দেড় সপ্তাহ যেতে না যেতেই বিশ্বের পঞ্চম ধনী ব্যক্তি হিসেবে তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন মুকেশ আম্বানি।

ফোর্বস রিয়েলটাইম বিলিওনেয়ার র‍্যাঙ্কিং অনুসারে, এবারও ওয়ারেন বাফেটকে পেছনে ফেলে পঞ্চম স্থান দখল করেছেন আম্বানি। তাঁর মোট সম্পদের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭৫ বিলিয়ন (সাড়ে সাত হাজার কোটি) মার্কিন ডলার। এ মুহূর্তে মুকেশ আম্বানির ঠিক আগে আছেন ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ। ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতার মোট সম্পদের পরিমাণ ৮৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

গত বুধবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারের মূল্য রেকর্ড পরিমাণ বেড়ে দুই হাজার ১০ রুপিতে পৌঁছে গিয়েছিল। ফলে এ শিল্প গোষ্ঠীর মোট বাজার মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ১৩ লাখ কোটি রুপি। যার ফলে ভারতের সবচেয়ে দামি প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠে রিলায়েন্স। সেইসঙ্গে মুকেশ আম্বানির সম্পদের পরিমাণ ক্রমেই বাড়তে থাকে। বিশ্বের পঞ্চম ধনী ব্যক্তি হয়ে ওঠেন তিনি।

বিশ্বের ধনকুবেরের তালিকার শীর্ষে রয়েছেন অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। তাঁর মোট সম্পদ ১৮৫ দশমিক ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। মাইক্রোসফটের বিল গেটস রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ১১৩ দশমিক ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

লকডাউনে বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানে যখন তালা ঝোলার অবস্থা, এর ঠিক উল্টো ছবি রিলায়েন্সে। তাদের সম্পদ ক্রমেই ফুলে ফেঁপে উঠেছে।