টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ডাকাত’ নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে র‍্যাব।

কক্সবাজারে র‍্যাব-১৫-এর অধীন টেকনাফ সিপিসি-১ অপারেশন কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) বিমল চন্দ্র কর্মকার জানান, ভোররাত ৩টার দিকে টেকনাফে দায়িত্বরত র‍্যাব-১৫ (সিপিসি-১) সদস্যরা গোপন সংবাদে জানতে পারেন, হ্নীলা দমদমিয়া সেন্টমার্টিন কেয়ারি জাহাজঘাট ১৪ নম্বর ব্রিজসংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় অপরাধ সংঘটিত করার জন্য একদল ডাকাত অবস্থান নিয়েছে। সে তথ্য অনুযায়ী র‍্যাবের একটি চৌকশ দল অভিযানে যায়। এরপর ডাকাত দলের সদস্যরা র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেরে গুলিবর্ষণ শুরু করলে আত্মরক্ষার্থে র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়।

উভয়পক্ষের গোলাগুলি থেমে যাওয়ার পর র‍্যাব সদস্যরা গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে থাকা এক ডাকাতকে উদ্ধার করে। তাঁকে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত যুবক হচ্ছেন মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আশ্রয় নেওয়া সফিক উল্লাহর ছেলে রশিদউল্লাহ (২৭)। তিনি পাহাড়ে লুকিয়ে থাকা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য।

এদিকে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে দেশে তৈরি দুটি এলজি ও পাঁচটি গুলি উদ্ধার করেছে র‍্যাব। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।