বাংলাদেশে ৫৯০ বার জিন পাল্টেছে করোনা ভাইরাস

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৫৯০ বার জিন পাল্টেছে বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ বিসিএসআইআরের বিজ্ঞানীরা। ১৭১টি কেসের সিকোয়েন্স বিশ্লেষণ করে এই ফলাফল পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। যার মধ্যে ৮ বারের মিউটেশন বিশ্বে প্রথম ঘটেছে।

আজ রোববার বিসিএসআইআর এর অডিটোরিয়ামে কোভিড-১৯ এর মিউটেশন নিয়ে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞানীরা জানান, নতুন মিউটেশনের তথ্যগুলো বিশ্ব দরবারে উপস্থাপন করা হবে। এই তথ্য প্রতিষেধক আবিষ্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তারা জানান, এখন পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স করা হয়েছে ২২২টি। এরমধ্যে বিসিএসআইআর করেছে ১৭৩টির। করোনা ভাইরাসের সর্বমোট ৩০০টি জিনোম সিকোয়েন্স করার উদ্যোগ নেয়ার কথাও জানান বিসিএসআইআরের বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা জানান, ভাইরাসটি প্রোটিন লেভেলে ২৭৩ বার মিউটেশন করেছে এবং ৩৮টি স্পাইক পরিবর্তন করেছে। বাংলাদেশে সংক্রমণের প্রধান কারণ D614G করোনাভাইরাস বলেও শনাক্ত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ভাইরাসটি মানুষের শরীরের উপকারি ব্যাকটেরিয়া নিষ্ক্রিয় করে দেয় বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।