অনলাইনে কুরবানির পশু কেনার আহ্বান স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে অনলাইনে কুরবানির পশু কেনার আহ্বান জানিয়েছেন, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম। আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পশু বিক্রির অনলাইন প্লাটফর্ম ডিজিটাল হাট উদ্বোধন করে এ আহ্বান জানান তিনি।

উদ্বোধন শেষে ডিজিটাল হাট থেকে প্রথম কোরবানির পশু কেনেন মন্ত্রী। এটুআই ও ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর সহযোগিতায় এই ই-হাটের কার্যক্রম চলবে।

তাজুল ইসলাম বলেন, অনলাইনে গরু কেনাবেচা এটা আমাদের দেশে গরুর হাটে নতুন মাত্রা যুক্ত করেছে। ভবিষ্যতে কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব না থাকলেও মানুষের কাছে একটি নির্ভরশীল জায়গা হবে। তাই আমি মনে করি এটা একটা ভালো উদ্যোগ।

এই অনলাইন হাটের কয়েকটি চ্যালেঞ্জ আছে উল্লেখ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ক্রেতা ও বিক্রেতারা কিভাবে লেনদেন করবেন, মূল্য নির্ধারণের বিষয়ে যে স্লাভ দেয়া হয়েছে সেখানে দর কষাকষির সুযোগ থাকা প্রয়োজন ছিল।

তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের কয়েকটা স্লটারহাউজ (কসাইখানা) প্রয়োজন রয়েছে, তা নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনকে ভাবতে হবে। এখানে তাহলে সরকার কিছু আর্থিক সহায়তা করতে পারবে। একই সঙ্গে চামড়া সংরক্ষণের জন্য স্লটারহাউজের পাশেই ব্যবস্থা রাখতে হবে।

তিনি আরো বলেন, এই উদ্যোগগুলো আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নেয়া হয়েছে। তার নির্দেশিত পথেই আমরা আগামীতে এগিয়ে যাব। আমরা ভালো স্বপ্নের জায়গায় নয়, স্বপ্ন পূরণের জায়গায় আছি। আমাদের আস্থার জায়গা তৈরি করতে হবে। সেই জায়গায় সবাইকে কাজ করতে হবে।

মৎস ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, রোগাক্রান্ত পশু যাতে কোরবানি জন্য বিক্রি না হয় সেদিকে নজরদারি দেয়া হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, রাজধানীতে গরুর হাট এবার সীমিত করা হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান, এফবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে ফাহিম, বাংলাদেশ ডেইরি ফার্ম অ্যাসোসিয়েশেনের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ ইমরান হোসেন।

এছাড়াও যুক্ত ছিল সিপিডির সিনিয়র গবেষক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট শমী কায়সার । আইসিটি ডিভিশন, মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ডেইরি ফার্ম অ্যাসোসিয়েশন, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এবং বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সহযোগিতায় ডিএনসিসি ডিজিটাল হাট বাস্তবায়ন করবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ও ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ।