রাজধানীর দারুসসালামে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

ঢাকার দারুসসালাম এলাকায় ১৪ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় সাকিব নামের এক ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ।ধর্ষণের সহযোগিতা করার জন্য রিক্তা নামের আরেক নারীকেও আটক করা হয়েছে। এছাড়া আরও ৬ ধর্ষক পলাতক রয়েছে। ভু্ক্তভোগী কিশোরীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ভু্ক্তভোগীর পরিবার দারুসসালাম থানায় একটি মামলা করেছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিরপুর বিভাগের দারুসসালাম জোনের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার মাহমুদা আফরোজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ওই কিশোরী বোনের সঙ্গে দারুসসালাম এলাকার একটি বাসায় থাকতো। দুদিন আগে ধর্ষকরা তাকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে। গতকাল রাতে ভু্ক্তভোগীর পক্ষ থেকে দারুসসালাম থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ভু্ক্তভোগী ৬ জনের কথা উল্লেখ করেছে। রাতেই আমরা এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছি।

বাকিরা পলাতক আছে। তাদেরকে শিগগির গ্রেপ্তার করা হবে।