তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ: সৈয়দপুরে আহত ৩০

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় পানের পিক ফেলাকে কেন্দ্র করে বিতর্কের সূত্র ধরে দুই ক্যাম্পবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (২৭ এপ্রিল) ইফতারির পূর্ব মূহুর্তে সৈয়দপুর শহরের নতুন বাবুপাড়া কলিম মোড় এলাকায় সংঘটিত এ ঘটনায় ৩০জন আহত হয়েছেন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
জানা যায়, দুই দিন আগে সৈয়দপুর শহরের শহীদ জহুরুল হক রোডস্থ মক্কা ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির দোকানে গেটে দেয়া তালায় পানের পিক ফেলা নিয়ে বিরোধ হয় স্থানীয় দূর্গামিল ক্যাম্প ও পাশ্ববর্তী কুলি মহল্লার লোকজনের মধ্যে। এরই জের ধরে সোমবার(২৭ এপ্রিল) বিকেলে বাদ আসর আবারও উত্তেজনার সৃষ্টি হয় উভয় মহল্লাবাসীর মধ্যে। তর্ক-বিতর্ক তা মূহুর্তে রূপ নেয় রণক্ষেত্রে। দুই পক্ষের প্রায় ২ শতাধিক মানুষ ইট, পাথর নিক্ষেপসহ লাঠি, রড নিয়ে জড়িয়ে পড়ে তুমুল সংঘর্ষে ।
এতে ঘটনাস্থলেই আহত হয় প্রায় ৩০ জন। এর মধ্যে গুরুত্বরভাবে আহত ১২ জনকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরা হলেন কুলি মহল্লার রনি, নাইম, মনসুর, নাসিম এবং দূর্গা মিল ক্যাম্পের রাজু, রায়হান, নয়ন, সমসের, আফতাব, মমতাজ, আরজু ও জাহাঙ্গীর। এদের মধ্যে রনির অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাৎক্ষনিক তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।পৗরসভার ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু বলেন, বিষয়টি আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল।কিন্তু উভয় পক্ষের অসহযোগিতার কারণে তা করা সম্ভব হয়নি। এরই মধ্যে আবারও তাদের সংঘর্ষের ঘটনা খুবই দুঃখজনক।
সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খান বলেন, পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।