মূল্যবৃদ্ধির হিড়িক: জনগণকে আতঙ্কের কেনাকাটা না করতে চিটাগাং চেম্বার সভাপতির আহ্বান

বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনভাবেই আতঙ্কিত না হতে সাধারণ জনগণের প্রতি আহবান জানিয়েছেন দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি মাহবুবুল আলম। একই সাথে তিনি স্যানিটাইজার, মাস্ক, হ্যান্ডওয়াশ ইত্যাদি প্রয়োজনীয় ঔষধপত্র ও ভোগ্যপণ্যের কোন ধরণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি না করা এবং মূল্য ও সরবরাহ ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি এ আহবান জানান।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নাজুক পরিস্থিতি সৃষ্টি হলেও বাংলাদেশের অবস্থা এখনো অনেক ভালো আছে। তাই আতঙ্কিত না হয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে এবং সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।
এক্ষেত্রে অপ্রয়োজনীয় ঘরের বাইরে না যাওয়া, সব সময় মাস্ক ব্যবহার করা, সাবান, স্যানিটাইজার দিয়ে নিয়মিত হাত ধোয়া, সর্দি, কাঁশি, জ্বর হলে নিজেকে অন্যদের কাছ থেকে আলাদা করে রাখা এবং সরকারিভাবে প্রদত্ত নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।
এছাড়া জরুরী ঔষধপত্র, ফার্মাসিউটিক্যালস সামগ্রী, স্যানিটাইজার ইত্যাদির মূল্য স্বাভাবিক রাখা এবং কোন কৃত্রিম সংকট যাতে সৃষ্টি না হয় ও সরবরাহ ব্যবস্থা যাতে সুষ্ঠু থাকে তা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।
এ প্রসংগে তিনি বলেন, গত কয়েক দিন যাবৎ কিছু কিছু জায়গায় সাধারণ মানুষের মধ্যে নিত্য প্রয়োজনের তুলনায় কিছুটা বেশী পরিমাণে ভোগ্যপণ্য ক্রয়ের প্রবণতা দেখা যাচ্ছে যা একবারেই অপ্রয়োজনীয়। কেননা, রমজান মাসকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে দেশে সব ধরণের ভোগ্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ নিশ্চিত করা হয়েছে।
এছাড়া আমদানি অব্যাহত থাকায় পাইপ লাইনে অনেক পণ্য আসছে। তাই অদূর ভবিষ্যতে কোন পণ্যের সংকট সৃষ্টি হওয়া কিংবা দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কোন আশংকা নেই। এ প্রেক্ষিতে জনসাধারণকে অহেতুক অতিরিক্ত পণ্য ক্রয় করা থেকে বিরত থাকা, সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী কর্তৃক কোন ধরণের পণ্যের দাম বৃদ্ধি না করা, অতিরিক্ত মজুদদারী না করা এবং ভোগ্যপণ্যের সরবরাহ ও বাজার স্থিতিশীল রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন চিটাগাং চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম। এক্ষেত্রে তিনি বিভিন্ন এসোসিয়েশন ও প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।