তানোরে ভিজিএফ চাউল কম দেয়ায় তানোর পৌর মেয়র মিজান গ্রেপ্তার

Saju Tanore 30-06-2016 mijan maeor atok photo-1তানোরে ভিজিএফ চাউল কম দেয়ায় অপরাধে তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এঘটনায় তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার শামীমা সারমীন বাদি হয়ে মেয়র মিজানসহ ৪জনকে আসামী করে তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার বিবরণ, পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শি সুত্রে জানা গেছে, সারা দেশের ন্যায় সরকার প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার দরিদ্রদের ঈদ উজ্জাপনের জন্য প্রতি জনকে ২০ কেজি করে চাউল প্রদান করছেন।

এরই ধারা বাহিকতায় গতকাল বৃহস্পতিবার তানোর পৌরসভা কার্যালয়ে ৩টি বুথের মাধ্যমে পৌর এলাকার ১হাজার ৫শ’৪০জনের মধ্যে ২০ কেজি করে ভিজিএফ চাউল বিতরণ করা হচ্ছিল। তানোর পৌরসভায় ভিজিএফ চাউল বিতরনে ট্যাগ অফিসারের দায়িত্বরত অফিসার হিসাবে ১টি বুথে উপস্থিত ছিলেন তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার শামীমা সারমীন। এসময় অন্য ২টি বুথে চাউল কম পেয়ে ভুক্ত ভোগীরা ট্যাগ অফিসারকে অভিযোগ করেন। এসময় সমাজ সেবা অফিসার চাউল কম দেয়ার বিষয়টি মেয়রকে অবহিত করলেও মেয়র কোন গুরুত্ব বা প্রতিকার না করায় তিনি বিষয়টি তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রশিদকে মোবাইলে জানান।

খবর পেয়ে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রশিদ বেলা ১টার দিকে তানোর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা, তানোর খাদ্য গুদান (ওসি) এলএসডি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও), তানোর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুস সবুরসহ সংগীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে তানোর পৌর কার্যালয়ে চাউল বিতরন স্থলে হাজির হয়ে দেখেন সেখানে বালতীতে করে অজন ছাড়াই চাউল বিতরন করা হচ্ছে। এসময় বিতরণকৃত ভিজিএফ চাউল গুলো ইউএনও সকলের সামনে পুনরায় অজন করে ২০ কেজির পরিবর্তে বেগম আরার বস্তায় ৯ কেজি ৬শ’ ৫০ গ্রাম, আলেকজানের বস্তায় ৯কেজি ৮গ্রাম, আমোলীর বস্তায় ৭কেজি ৬শ’ ১৫গ্রাম, রাহেলা কুঠিপাড়া ১৬ কেজি ৯৭গ্রাম, মফিজের বস্তায় ১৭কেজি ৮৭গ্রাম চাউল পাওয়া যায়। এসময় তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রশিদ মেয়র মিজানুর রহমান মিজানকে আটকের নির্দেশ দিলে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এঘটনায় তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার বাদি হয়ে মেয়র মিজানসহ ৪জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মেয়র মিজানকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

এব্যাপারে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রশিদ মামুন বলেন, তানোর পৌর এলাকার দরিদ্রদের মাঝে ভিজিএফ চাউল ২০ কেজি না দিয়ে কম দেয়া হচ্ছে, ট্যাগ অফিসার উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার বিষয়টি মোবাইলে জানালে ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা পাওয়ার পর মেয়র মিজানকে আটকের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।এব্যাপারে মামলার বাদি তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার শামীমা সারমিন বলেন, চাউল ওজনে কম দেয়ার বিষয়টি মেয়রকে জানিয়েও কোন প্রতিকার না পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করা হয়ে নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে এসে সত্যতা পেয়েছেন। এব্যাপারে আটক তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজান বলেন, আমি সবাইকে ২০ কেজি চাউল বিতরন করার নির্দেশ দিয়েছি, কিন্তু জারা চাউল বিতরণ করছিল এটা তাদের বিষয় আমি এঘটনার সাথে কোন ভাবেই জড়িত নয়। এব্যাপারে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মির্জা আব্দুস সালাম বলেন, এঘটনায় তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার বাদি হয়ে মেয়র মিজানসহ ৪জনকে আসামী করে তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ওই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেল হাজতে প্রেরনের প্রস্তুতি চলছে। অন্য আসামীদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যত রয়েছে। #